বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ০১:০৩ অপরাহ্ন [gtranslate]
শিরোনাম :
🏘 অফিস এর ঠিকানা: অল আইটি বিডি, জিএস ভবন (১ম, ২য়, ৩য়, ৪র্থ, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা),আলতাফুন্নেসা খেলার মাঠের পশ্চিমে, শেরপুর রোড, সাতমাথা, বগুড়া।
রংপুর নগরীতে একটি হত্যা মামলার সাক্ষীর ভাই খুন
/ ৩০ Time View
Update : বৃহস্পতিবার, ৬ আগস্ট, ২০১৫, ২:৩৪ পূর্বাহ্ন

রংপুর সংবাদদাতা : রংপুর নগরীতে এক হত্যা মামলার সাক্ষীর ছোট ভাইয়ের ঝুলন্ত লাশ পাওয়া গেছে, যাকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করছে পুলিশ। মঙ্গলবার গভীর রাতে নগরীর পার্বতীপুর এলাকা থেকে সাগরের (১৪) লাশটি উদ্ধার করা হয় বলে কোতোয়ালি থানার এসআই আবদুল লতিফ জানান। তিনি জানান, সাগরের বাড়ি থেকে ৩০০ গজ দূরে একটি গাছের ডালে রশিতে ঝোলানো তার লাশ পাওয়া যায়। তার দুই পা মোড়া এবং হাঁটু মাটির সঙ্গে লেগে ছিল। শরীরে কোনো আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। সম্ভবত খুনিরা অন্য কোথাও তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করে লাশটি এভাবে ঝুলিয়ে রেখেছে।
লাশ ময়নাতদন্তের জন্য রাতেই রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। প্রতিবেদন পাওয়ার পর হত্যার বিষয়টি পরিষ্কার হবে বলে জানান এসআই লতিফ।
এসআই আবদুল লতিফ জানান, গত ১ জুলাই রাতে শহরের পীরজাবাদ এলাকায় দুই পক্ষের সংঘর্ষে ১৭ নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির আহ্বায়ক শহীদার রহমান নিহত হওয়ার মামলায় ৩ নম্বর সাক্ষী হলেন মিলন মিয়া। নিহত সাগর মিলনের ছোট ভাই।
তিনি আরও বলেন, মিলন মিয়ার মালিকানাধীন চালকলে কাজ করত সাগর। রাতে বাড়িতে না ফেরায় খুঁজতে খুঁজতে গাছে ঝুলন্ত ভাইয়ের লাশ দেখে মিলন পুলিশে খবর দেন।
মিলন বলেন, বিএনপি নেতা শহিদার রহমান হত্যা মামলায় সাক্ষী হওয়ায় আসামিরা আমাকে বিভিন্নভাবে মোবাইলে হুমকি দিয়ে আসছিল। আমার ধারণা ওই হত্যা মামলার আসামিরাই আমার ভাইকে হত্যা করে লাশ গাছে ঝুলিয়ে রেখেছে।
বিএনপি নেতা শহীদার রহমান হত্যা মামলার আসামির সংখ্যা ৭৪। সবাই পলাতক। এদের মধ্যে ১ নম্বর আসামি নয়ন ও ২ নম্বর আসামি হারুন ফোনে হুমকি দিত বলে জানিয়েছেন মিলন।

আপনার মতামত লিখুন :

Comments are closed.

More News Of This Category
Our Like Page